১৯০ টাকায় ল্যাপটপ, ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা

অনলাইনে পণ্য কেনাকাটায় মূল্য ছাড়সহ বিভিন্ন অফার দেয়া নতুন কোনো বিষয় নয়। ই-কমার্স সাইটগুলো প্রায়ই বিভিন্ন বিশেষ দিনগুলোতে বা বিশেষ ইভেন্টগুলোতে মূল্যছাড়সহ আরও নানারকম আকর্ষনীয় অফার দিয়ে থাকে।


ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে বিশ্বের অন্যতম বড় প্রতিষ্ঠান হলো অ্যামাজন যার মালিক বর্তমান বিশ্বের শির্ষ ধনী জেফ বেজোস।Amazon প্রায়ই বিশাল মূল্যছাড় অফার দিয়ে থাকে।তবে তাই বলে ১৯০টাকায় ল্যাপটপ? কি অবাক হলেন?

অবাক হবারই কথা।তবে বাস্তবে এটাই ঘটেছে।তবে এর সাথে রয়েছে এক রোমাঞ্চকর ঘটনা।



ভারতের ওড়িশা রাজ্যের ছাত্র সুপ্রিয় রঞ্জন মহাপাত্র।২০১৪ সালে Amazon এ এরকমই একটা আকর্ষনীয় অফার পেয়ে বসে এই ছেলেটি।১৯০ টাকায় পুরো একটি ল্যাপটপ।

ছেলেটি ছিলো আইন বিভাগের একজন স্টুডেন্ট।সামনেই তার প্রজেক্ট জমা দিতে হতো এবং এর জন্য ল্যাপটপের প্রয়োজন ছিলো।তবে তার কাছে ল্যাপটপ ছিলো না।তাউ এরমম একটি অফার দেখে সে অবাক হবার থেকে খুশিই হয়েছিলো।তাই দেরি না করে ঝটপট অর্ডার দিয়ে ফেললো ১৯০টাকায় ল্যাপটপ।তবে তার কিছুক্ষণ পরেই অর্ডার ক্যানসেল হওয়ার মেইল আসল।


এবার ছেলেটি অবাক হলো পাশাপাশি একটু রাগও হলো তার।কারণ অর্ডার ক্যানসেলের যুক্তিসংগত কোনো কারণও দেখায়নি Amazon.ছেলেটি কয়েকবার কাস্টমার সাপোর্টে যোগাযোগ করে।সেখান থেকে বলা হয়, মূল্যজনিত সমস্যার কারনে অর্ডারটি ক্যানসেল করা হয়েছে।

তবে ছেলেটিও দমবার পাত্র নয়।সে আবারও ১৯০টাকায় ল্যাপটপ অর্ডার দিলো।তবে অনেকদিন হয়ে যাওয়ার পরেও Amazon থেকে ল্যালটপটি ডেলিভারি দেওয়া হয়নি।অবশেষে ছেলেটি ওড়িশা স্টেট কনজিউমার ডিসপিউট রিড্রেসাল কমিশনে এই বিষয়টি নিয়ে রিপোর্ট করে।


এর প্রায় ৭ বছর পর ২০২১ সালে অবশেষে সে তার প্রাপ্যটা বুঝে পেয়েছে।মানসিক হয়রানি এবং আর্থিক প্রতারনার কারনে Amazon কে ৪০,০০০টাকা জরিমানা করেছে সরকার।এই ৪০,০০০ টাকা সুপ্রিয়কে দেবে Amazon.এর পাশাপাশি এই দীর্ঘ সময় ধরে মামলা পরিচালনা এবং বিক্রেতাকে অপদস্ত করার জন্য  অতিরিক্ত ৫,০০০ রূপি জরিমানা গুনতে হবে বিশ্বের অন্যতম সেরা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান অ্যামাজনকে।


বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে যে,ল্যাপটপটির অরিজিনাল মূল্য ছিলো প্রায় ২৩,০০০ রূপি।তবে ল্যাপটপটি কোন ব্রান্ডের ছিলো সে সম্পর্কে কোনো তথ্য এখনো জানা যায়নি।

😇😇😇😇😇😇😇😇😇😇😇

আশা করা যায় ভবিষ্যতে অ্যামাজন এই ধরনের ভূল থেকে বিরত থাকবে।যদিও এই জরিমানার পরিমান জেফ বেজোসের কাছে কিচ্ছুই না।(জাস্ট কিডিং😄)

Source: Internet

0 Comments

Post a Comment

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post